ঢাকা, বৃহস্পতিবার, মে ২৩, ২০২৪ | ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
Logo
logo

ত্রাণগণহত্যা সত্ত্বেও ইসরায়েলকে সামরিক সহায়তা দিয়ে যাবে যুক্তরাষ্ট্র: জন কিরবি


এনবিএস ওয়েবডেস্ক   প্রকাশিত:  ০২ মার্চ, ২০২৪, ০৫:০৩ পিএম

ত্রাণগণহত্যা সত্ত্বেও ইসরায়েলকে সামরিক সহায়তা দিয়ে যাবে যুক্তরাষ্ট্র: জন কিরবি

ত্রাণগণহত্যা সত্ত্বেও ইসরায়েলকে সামরিক সহায়তা দিয়ে যাবে যুক্তরাষ্ট্র: জন কিরবি

গাজায় ইসরায়েল গত ৭ অক্টোবর থেকে হামলা তান্ডব ও গণহত্যা চালিয়ে যাচ্ছে। শনিবার (২ মার্চ) এ হামলার ১৪৮তম দিন। এ হামলায় উপত্যকাটিতে অন্তত ৩০২২৮ জন নিহত এবং আহত হয়েছেন ৭১৩৭৭ জন। যার বেশিরভাগই নারী ও শিশু। যুক্তরাষ্ট্র বলেছে, গাজায় ত্রাণগণহত্যা সত্ত্বেও ইসরায়েলকে সামরিক সহায়তা দান অব্যাহত রাখবে ওয়াশিংটন।

উত্তর গাজায় ত্রাণ বিতরণের সময় সমবেত অসহায় ক্ষুধার্ত লোকজনের ওপর যে গণহত্যা সংঘটিত হয়েছে তা নিজ থেকে তদন্ত করে দেখতে ইসরায়েলের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। ওই গণহত্যায় অন্তত ১১৫জন নিহত এবং ৭৬০ জন আহত হয়েছেন। তাদের অনেকের অবস্থা আশংকাজনক। এরআগে হোয়াইট হাউস দাবি করে যে, ত্রাণের জন্য সমবেত জনতার ওপর ইসরায়েলি সেনাদের গুলিবর্ষণের ঘটনা তদন্তের ক্ষমতা ইসরায়েলের রয়েছে।

মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন কিরবি সাংবাদিকদের বলেন, আমরা ইসরায়েল সরকারকে বিষয়টি তদন্ত করতে বলেছি, আমাদের ধারণা এ ঘটনাকে গুরুত্বের সঙ্গে দেখছে  তেল আবিব এবং ভবিষ্যতে যাতে এমন ট্রাজেডি এড়ানো যায সেজন্য বিষয়টি তদন্ত করবে তারা।’ তবে তিনি বলেন, ‘আমরা এ গণহত্যার ঘটনা তদন্ত সম্পন্ন করার জন্য ইসরায়েলকে কোন সময়সীমা বেধে দেইনি।

মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা গাজায় ক্রমবধমান মানবিক বিপর্যয় সত্ত্বেও যুক্তরাষ্ট্র ইসরায়েলকে সামরিক সামরিক সহায়তা দান অব্যাহত রাখবে।